২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নেত্রকোণায় প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ষ্ট্যান্ড রিলিজ

গোলাম কিবরিয়া সোহেল ,নেত্রকোণা প্রতিনিধি:নেত্রকোণার কলমাকান্দা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মনিরুল ইসলামকে তাৎক্ষণিক অবমুক্তির (স্ট্যান্ড রিলিজ) চিঠি দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন নেত্রকোণা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লা।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন-১) মো. আব্দুল আলীমের গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) স্বাক্ষরিত চিঠির সূত্রে জানা যায়, পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত কলমাকান্দা উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. মনিরুল ইসলামকে টাংগাইল জেলার ধনবাড়ী উপজেলায় বদলি করা হলো।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বর্তমান কর্মস্থলের দায়িত্বভার হস্তান্তর করবেন। অন্যথায় বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) থেকে তিনি তাৎক্ষণিক অবমুক্তি (স্ট্যান্ড রিলিজ) বলে গণ্য হবেন। তবে ওই চিঠিতে বদলির কারণ উল্লেখ ছিল না।

এ ব্যপারে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লা কলমাকান্দা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে তাৎক্ষণিক অবমুক্তির (স্ট্যান্ড রিলিজ) সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই কার্যালয়ের আরেক অভিযুক্ত অফিস সহকারি কাম কম্পিউটার অপারেটর মিল্টনের বিরুদ্ধে আসলে অভিযোগ প্রতিষ্ঠিত হয়। তাকেও বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) অফিসে এসে বদলির আদেশ জারির কথা জানান। তিনি আরও বলেন, বদলির আদেশ সম্পন্নের পর প্রাপ্ত অভিযোগের তদন্ত কার্যক্রম চলতে থাকবে।

উল্লেখ্য নেত্রকোণা জেলা পরিষদের সদস্য ইদ্রিছ আলী তালুকদার কলমাকান্দা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মনিরুল ইসলাম ও ওই কার্যালয়ের অফিস সহকারি কাম কম্পিউটার অপারেটর খান মো. সারোয়ার ইবনে হাবিব (মিল্টন) এর বিরুদ্ধে ঘুষ, অনিয়ম ও দুর্নীতি উল্লেখ করে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে অভিযোগ দেন।

এ অভিযোগের বিষয় উল্লেখ করে গণমাধ্যমে গত শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) ’শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত প্রতিবেদন নিয়ে উপজেলায় সকল শিক্ষকদের মাঝে কৌতুহল, উদ্দীপনা ও আলোচনা কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হন অভিযুক্ত দুইজন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক