১২ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে পৌষ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বিপুলসংখ্যক ভোটার বাদ পড়ার শঙ্কা দুর্গাপুর পৌর নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দ, মানা হয় নি সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি কাউখালী থানা প্রশাসনের সাথে সুনাম কমিটির লবি সভা অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-উইন্ডিজ সিরিজে আম্পায়ার পাঠাবে আইসিসি থানায় ঢুকে পুলিশ ও আসামীর ওপর হামলা ৫ হামলাকারী আটক মোংলায় আধা-নিবিড় বাগদা চিংড়ি চাষ বিষয়ক প্রশিক্ষণ ঠাকরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু মান্দায় ভূমিহীনদের ঘর উচ্ছেদ করতে চায় দখলদার বিপাকে ভূমিহীন মানুষ কাউখালীতে ব্যাংক কর্মকর্তার বাড়িতে দুর্র্ধর্ষ চুরি মাদারীপুরে ফসলি জমি থেকে মাটি কাটায় দুই ইটভাটা মালিককে জরিমানা

ট্রাক ড্রাইভার এনায়েত মল্লিক হত্যার বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

মোহাম্মদ ইমদাদুল হক মিলন, মাদারীপুর: মাদারীপুরে ট্রাক ড্রাইভার এনায়েত মল্লিক (৩৫) হত্যার সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে মাদারীপুর জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মাদারীপুর জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ ও নিহতের পরিবার। মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায় নিহত এনায়েত মল্লিক গত ১৪ অক্টোবর রাত ৮ টার দিকে শরীয়তপুরে মাল খালাস করে মাদারীপুর ফেরার পথে মাদারীপুর সদর
থানার মঠেরবাজার নামক স্থানে ট্রাক দাঁড় করিয়ে রাতের খাবার খাওয়ার জন্য নামেন।

এ সময় পেছন থেকে একটি অটো এসে ট্রাকের সাথে ধাক্কা
খায়, পরবর্তীতে ট্রাক ড্রাইভার এনায়েত মল্লিকের সাথে অটো
ড্রাইভারের বাকবিতন্ডা হয় এক পর্যায়ে মঠেরবাজারের স্থানীয় চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী মুন্সির ছেলে রাজিব মুন্সি ও অটো ড্রাইভার সহ তাদের সাঙ্গপাঙ্গরা এনায়েত মল্লিকের উপর চড়াও হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন এনায়েত মল্লিককে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
কিন্তু সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে মারা যায়।

এনায়েত মল্লিক হত্যার ঘটনায় মাদারীপুর সদর মডেল থানায় রাজিব মুন্সিসহ ১৭ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে নিহতের পরিবার। কিন্তু মামলার ময়নাতদন্তের রিপোর্টে সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এটি সড়ক দূর্ঘটনা বলে উল্লেখ করেন। সংবাদ সম্মেলনে মাদারীপুর জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি খন্দকার খাইরুল হাসান নিটুল তার বক্তব্যে বলেন, ‘দুর্নীতিবাজ কিছু ডাক্তার অন্যায়ভাবে আসামীদের কাছ থেকে টাকা খেয়ে হত্যাকান্ডের ঘটনাকে রোড এক্সিডেন্টের বলে ময়না তদন্ততে ভূয়া রিপোর্ট উল্লেখ করে।

আমাদের কাছে ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ আছে, ফুটেজে দেখা গিয়েছে খুনিরা পরিকল্পিতভাবে এনায়েতকে হত্যা করে। আমরা এর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুষ্ঠু ও দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করছি। আমরা এর প্রতিবাদ স্বরুপ জেলা শ্রমিক ইউনিয়ন, ছাত্র সংগঠন আগামী ১৮ ডিসেম্বর সদর হাসপাতালের সামনে অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করবো, এর পরেও যদি আমাদের দাবী না মানা হয় তাহলে ১৩ই জানুয়ারি আমরা মাদারীপুর জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন সারাদিনব্যাপী ধর্মঘট পালন করবো।

এ সময় নিহত এনায়েত মল্লিকের স্ত্রী রোমানা বেগম (২৭) বলেন ‘আমার স্বামীকে খুনিরা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে কিন্তু ডাক্টাররা টাকা খেয়ে ময়নাতদন্ততে ভূয়া রিপোর্ট দিয়েছে, আমি দেশবাসী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সঠিক বিচার দাবী করছি। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে মাদারীপুর জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের

সভাপতি, খন্দকার খাইরুল হাসান নিটুল, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর
রহমান, সহ সভাপতি কালু বেপারী, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান চুন্নু সহ আরো শ্রমিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক