১১ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৭শে পৌষ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

২০৫০ সালের মধ্যে মঙ্গল গ্রহে তৈরি করবেন শহর

অনলাইন ডেস্ক: উপার্জনের নেশায় পিএইচডি সম্পূর্ণ করতে পারেননি তিনি ইলন মাস্ক। কোম্পানির সিইও হিসেবে বছরে বেতন নেন মাত্র ১ ডলার। ২০৫০ সালের মধ্যে মঙ্গলে একটি পরিপূর্ণ শহর স্থাপনের পরিকল্পনা আছে তাঁর। জেফ বেজোস, বিল গেটসকে পেছনে ফেলে বিশ্বের ধনীদের তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছেন তিনি ৷

‘স্পেস-এক্স’ এবং ‘টেসলা’র প্রধান ইলন মাস্কের মোট সম্পদের আর্থিক মূল্য ১৯১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ব্লুমবার্গ সূচক অনুযায়ী বিশ্বের সব চেয়ে ধনী ব্যক্তি এখন ইলন। গত তিন বছর ধরে শীর্ষ ছিলেন অ্যামাজনের প্রধান জেফ বেজোস। তাঁকে পিছনে ফেলেই আজ শীর্ষে ইলন।

১৯৭১ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেটোরিয়াতে ইলনের জন্ম। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের পর হাইস্কুল শেষে মা আর ভাই-বোনকে নিয়ে কানাডায় চলে যান মাস্ক। সেখানে অন্টারিওর এক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। পরে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিদ্যা আর অর্থনীতিতে মাস্টার্স করেন।স্নাতকোত্তর শেষে পিএইচডি’র জন্য যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে সুযোগ পান। কিন্তু উপার্জনের টানে পিএচইডি আর করা হয় না তাঁর। ২০৫০ সালের মধ্যে মঙ্গলে একটি পরিপূর্ণ শহর স্থাপনের পরিকল্পনা আছে তাঁর।

 

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক