২৭শে মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে সেবা বিপর্যয়ে কী বললো ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশে ফেসবুক ও মেসেঞ্জার অ্যাপে সেবা বিপর্যয়ের ঘটনায় আমেরিকান প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটির বক্তব্য নিয়ে আজ শনিবার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ মনে করে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দুই দিনের সফরকে কেন্দ্র করে চলমান বিরোধিতার পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার (২৬ মার্চ) থেকে বাংলাদেশে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি ডাউন করে রাখা হয়েছে।

ফেসবুক এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘বাংলাদেশে আমাদের সেবা সীমিত করার ব্যাপারে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা ঘটনাটি আরও বুঝতে কাজ করছি এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সবকিছু পুনরুদ্ধারের আশা করছি।’

বিবৃতিতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আরো উল্লেখ করে, ‘করোনা ভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় কার্যকর যোগাযোগের জন্য এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম প্রয়োজন। এমন সময়ে বাংলাদেশে এটি সীমিত রাখার ঘটনা উদ্বেগজনক।’

প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, ‘ফেসবুক ও মেসেঞ্জার ডাউন রাখার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের কেউ কোনো মন্তব্য করেননি। তবে এর আগেও বিক্ষোভের বিস্তার রোধের অংশ হিসেবে ইন্টারনেট শাটডাউন রেখেছিল সরকার।’

রয়টার্সের প্রতিবেদন বলছে, মোদির সফরের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের সময় শুক্রবার চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানায় আন্দোলনকারীরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ রয়েছে। এ সময় পুলিশ গুলি চালালে চারজন নিহত হয়।

রয়টার্স জানিয়েছে, কট্টরপন্থী গোষ্ঠী হেফাজতে ইসলাম চট্টগ্রামে হত্যার ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার (২৮ মার্চ) সারাদেশে হরতাল ডেকেছে। হেফাজত ও দলটির সমর্থকরা মোদির বিরুদ্ধে ভারতে সংখ্যালঘু মুসলমানদের ওপর নিপীড়নের অভিযোগ তুলেছেন।

গত বছর করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে বিশ্বজুড়ে লকডাউন পরিস্থিতি দেখা দেওয়ার পর বাংলাদেশের মাধ্যমে আবার বিদেশ সফর করলেন নরেন্দ্র মোদি। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে দুই দিনের জন্য শুক্রবার ঢাকায় পা রাখেন তিনি।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক