৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় ৮০ তম স্থানে রাজাপুরের সায়মা জাহান

রেজাউল ইসলাম পলাশ, রাজাপুর (ঝালকাঠি) প্রতিনিধিঃ এ বছর মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় জাতীয় মেধা তালিকায় ৮০তম স্থান অধিকার করেছেন সায়মা জাহান। তিনি ঝালকাঠির রাজাপুর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও রাজাপুরের আলহাজ্ব লালমোন হামিদ মহিলা কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন।

তিনি ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলা সদরের আলহাজ্ব লালমোন হামিদ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ হেমায়েত উদ্দিন সেলিম ও একই কলেজের প্রভাষক শিরিন জাহান এর জেষ্ঠ্য কন্যা।

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায়। এতে পাস করেছেন ৪৮ হাজার ৯৭৫ জন। পাসের হার ৩৯ দশমিক ৮৬ শতাংশ। এদের মধ্যে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা মেধা তালিকা অনুযায়ী সরকারি ৩৭টি মেডিকেল কলেজে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন। কৃতকার্য অন্যান্য শিক্ষার্থীরা মেধা তালিকা অনুযায়ী দেশের অন্যান্য বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তি হতে পারবেন।

বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে আসন আছে ৮ হাজার ৩৪০টি। প্রকাশিত এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলে জাতীয় মেধা তালিকায় টেস্ট স্কোর ৮২.২৫ অর্জন করে ৮০ তম স্থান রয়েছেন ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার সায়মা জাহান। তার রোল নম্বর ১৮০০২৯১। তিনি বরিশালের শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ কেন্দ্র থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন।

গত শুক্রবার সারাদেশে একযোগে ১৯টি কেন্দ্রের ৫৫টি ভেন্যুতে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ২২ হাজার ৮৭৪। এদের মধ্যে অংশগ্রহণ করেছিলেন ১ লাখ ১৬ হাজার ৭৯২ জন এবং অনুপস্থিত ছিলেন ৬ হাজার ৮২ জন। কৃতকার্য হয়েছেন ৪৮ হাজার ৯৭৫ জন।

সরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য নির্বাচিত ৪ হাজার ৩৫০ জনের মধ্যে ছাত্রী ২ হাজার ৩৪১ জন (৫৪ শতাংশ) এবং ছাত্র ২ হাজার ৯ জন (৪৬ শতাংশ)। এদের মধ্যে চলমান শিক্ষাবর্ষ থেকে নির্বাচিত হয়েছেন ৩ হাজর ৯৩৭ জন এবং পূর্ব শিক্ষাবর্ষ থেকে নির্বাচিত হয়েছেন ৪১৩ জন।

শিক্ষার্থী সায়মা জাহান তার নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে বলেন, আলহামদুলিল্লাহ ফলাফল পেয়ে ভীষণ খুশি আমি। আমার এমন ফলাফলের পেছনে মা-বাবা ও খালামনি সহকারী অধ্যাপক জেসমিন আক্তার, আমার শিক্ষক মামুন স্যারের অনুপ্রেরণা সহ শিক্ষকদের অবদান সবচেয়ে বেশি। ভবিষ্যতে একজন চিকিৎসক হয়ে মানবতার সেবায় নিজেকে সম্পৃক্ত করতে চাই।

 

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক