২৮শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি

জনপত্র ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সিটি স্ক্যানসহ স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে বিএনপি প্রধানকে এই হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করার তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান।

তিনি বলেন, ‘ম্যাডামকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উনি ‌ডাক্তার শাহাবুদ্দিন আহমেদের তত্ত্বাবধানে আছেন। উনার সিটি স্ক‍্যানসহ অন‍্যান‍্য পরীক্ষার রিপোর্ট বিশ্লেষণ করে আগামীকাল পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

গত ১১ এপ্রিল ৭৫ বছর বয়সী খালেদা জিয়ার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় ছিলেন তিনি। এর মধ্যে ১৫ এপ্রিল সিটি স্ক্যান করাতে খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। তখন পরীক্ষায় তাঁর ফুসফুসে সামান্য সংক্রমণ ধরা পড়ার কথা জানিয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের ব্যক্তিগত চিকিৎসকেরা।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে খালেদা জিয়া হাসপাতালের উদ্দেশে গুলশানের বাসা থেকে বের হন। তাঁর ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের প্রধান এফ এম সিদ্দিকী ও চিকিৎসক আল মামুন এবং বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নেত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

দুর্নীতির দুই মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত খালেদা জিয়া ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে দুই বছরের বেশি সময় বন্দী ছিলেন। সে সময় চিকিৎসার জন্য তিনি বছরখানেক বঙ্গবন্ধু শেখ মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি থাকার মধ্যে দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। এরপরই গত বছর ২৫ মার্চ ছয় মাসের জন্য দণ্ড স্থগিত করে তাঁকে মুক্তি দেয় সরকার। ওই সময় পার হওয়ার পর দফায় দফায় তাঁর দণ্ড স্থগিতের মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার। ছাড়া পাওয়ার পর থেকে গুলশানের ওই বাসায় ছিলেন বিএনপি নেত্রী। সেখানে নেতা–কর্মীদের প্রবেশে কড়াকড়ি ছিল।

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক