২৮শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে মাত্র ১ রানে হারল দিল্লি

জনপত্র ডেস্ক: মাত্র ১ রানের ব্যবধানে জয়! শ্বাসরুদ্ধকর এক ম্যাচ দেখল ক্রিকেটপ্রেমীরা। ধুমধাড়াক্কা টি-টোয়েন্টিতে এমন ম্যাচই উপভোগ করতে চায় দর্শকরা।

যেখানে দলের জয়-পরাজয়ের হাসি-কান্নাকে ছাপিয়ে জয় হয় ক্রিকেটের।

মঙ্গলবার রাতে আহমেদাবাদের মোতেরা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আইপিএলের ২২তম ম্যাচটিতে মূলত ক্রিকেটের জয়ধ্বনি বাজল।

মাত্র ১ রানে জয় পেয়ে হাসি ফুটল বিরাট কোহলির মুখে।

এদিন আহমেদাবাদে দিল্লি ক্যাপিটালসের মুখোমুখি হয়েছিল রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

টস জিতে ব্যাঙ্গালুরুকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় দিল্লির অধিনায়ক ঋষভ পন্ত। আর সুযোগের সদ্ব্যবহার করেন আরসিবির অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান প্রোটিয়া তারকা এবি ডি ভিলিয়ার্স।

দক্ষিণ আফ্রিকান এই ব্যাটসম্যানের ঝড়ে ১৭২ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর ছুঁড়ে দেয় ব্যাঙ্গালুরু। ৪২ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ৫ ছক্কায় ৭৫ রানে অপরাজিত থাকেন ভিলিয়ার্স।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে টর্নেডো ব্যাটিং করেন দিল্লির ক্যাবিবীয় হার্ডহিটার শিমরন হেটমায়ার। অধিনায়ক ঋষভ পন্তও দায়িত্বশীল ইনিংস খেলে জয়ের বন্দরের কাছাকাছি পৌঁছে যান। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাব ১৭০ রানের বেশি করতে পারেনি দিল্লি। ফলে ১ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পায় ব্যাঙ্গালুরু।

১৭২ রানে তাড়ায় যদিও শুরুটা ভালো হয়নি দিল্লির। শুরুতে ধীর গতিতে রান তুলে দিল্লির টপঅর্ডাররা। বলতে গেলে এই কারণেই পরাজয়ের স্বাদ নিতে হলো দলটির। দলীয় ৫০ রান করতে তারা খেলে ফেলে প্রায় ৮ ওভার। হারায় তিনটি উইকেটও।

দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ৬ ও পৃথ্বি শ ২১ রান করে আউট হন। স্টিভেন স্মিথ মাত্র ৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

১৭ বলে ২২ রান করে আউট হন অসি অলরাউন্ডার মার্কাস স্টয়নিস। অপরপ্রান্ত আগলে রেখে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন অধিনায়ক পন্ত। পঞ্চম উইকেটে জুটি বাঁধেন হেটমায়ারের সঙ্গে।

এ দুজনের ব্যাটে জয়ের আশা জাাগে দিল্লির। শেষ তিন ওভারে দিল্লির প্রয়োজন ছিল ৪৬ রান।

১৮তম ওভারে কাইল জেমিসনকে তিন ছক্কা হাঁকান হেটমায়ার। খেলায় টানটান উত্তেজনা শুরু হয়। ওই ওভারে ২১ রান নেয় দিল্লি।

১২ বলে ২৫ রানের দরকার পড়ে। ১৯তম ওভারে হার্শাল প্যাটেল থেকে ১১ রান তুলে নেন হেটমায়ার-পন্ত জুটি। মাত্র ২৩ রানে ফিফটি তুলে নেন হেটমায়ার।

শেষ ওভারে প্রয়োজন পগে ১৪ রান। মোহাম্মদ সিরাজের হাতে বল তুলে দেন ব্যাঙ্গালুরু অধিনায়ক কোহলি।

প্রথম চার বলে মাত্র ৪ রান দেন সিরাজ। পঞ্চম বলে বাউন্ডারি হাঁকান পন্ত। শেষ বলে জয়ের জন্য দরকার ৬ রান।

কিন্তু শেষ বলে আর ছক্কা হাঁকাতে পারেননি দিল্লি অধিনায়ক। সিরাজের করা অফস্ট্যাম্পের অনেক বাইরের বলটি পয়েন্ট অঞ্চল দিয়ে চার মেরে পরাজয়ের ব্যবধান ১ রানে নামিয়ে আনেন পন্ত।

পন্ত অপরাজিত থাকেন ৪৮ বলে ৫৮ রান। হেটমায়ার করেন ২৫ বলে ৫৩ রান।

এ জয় নিয়ে চেন্নাই সুপার কিংসকে টপকে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করল কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু।

 

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক