৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ব্রাজিল কেন কঠিন প্রতিপক্ষ, জানালেন মেসি

এবারের কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার সমর্থক ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। তবে তা অবশ্য ফাইনাল পর্যন্ত।

মেসির হাতে শিরোপা তুলে দিতে বিন্দু পরিমান রাজি নন এ সেলেকাও প্রতিনিধি।

টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই নেইমার জানিয়ে আসছিলেন, ফাইনালে মেসির আর্জেন্টিনার সঙ্গে লড়েই লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট মাথায় পড়তে চান।

নেইমারের সেই অকুণ্ঠ সমর্থনে কথা শুনেছেন অদৃশ্য শক্তি। আগামী রোববার ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী ও বৃহত্তম স্টেডিয়াম রিউ দি জানেইরুর স্টেডিয়ামে ফাইনালে মুখোমুখি ফুটবলবিশ্বের দুই পরাশক্তি।

দেখা হচ্ছে দুই বন্ধুর। কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বার্সেলোনায় অনেকটা বছর খেলেছেন তারা। তবে দেশের প্রতিনিধিত্বের সময় সেই বন্ধুই আজ শত্রুতে পরিণত।

তাই ফাইনালের আগেই নেইমারের উদ্দেশে বার্তা দিয়ে রাখলেন মেসি। তিনি জানালেন, ক্লাব ফুটবলে একসঙ্গে অনেকদিন খেলার কারণে নেইমারের প্রতিভা, যোগ্যতা তার নখদর্পণে। আর নেইমারের কারণেই ব্রাজিল দলটি এক শক্ত প্রতিপক্ষ।

মেসি বললেন, ‘নেইমারকে নিয়ে ব্রাজিল সত্যিই কঠিন এক প্রতিপক্ষ। কিন্তু আশার বাণী হচ্ছ, আমরা তাদের সম্ভাবনা এবং শক্তির জায়গাগুলো জানি। বিশেষ করে নেইমার ব্যক্তিগতভাবে কী করতে পারে, সে ব্যাপারেও আমাদের জানা আছে।’

শিরোপার এতো কাছাকাছি এসে হাতছাড়া করতে রাজি নন মেসি। সে কথা প্রকাশ পেল তার বক্তব্যে।

তিনি বলেন, ‘জাতীয় দলের হয়ে আমি সব সময়ই চাই জিততে। আমি সব সময়ই চাই নিজের সেরাটা ঢেলে দিতে। নিজের সর্বস্ব দিয়ে লড়াই করতে এবং সব সময়ই লড়াই করি শিরোপা জেতার জন্য।’

অবশ্য তেতো ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ভয়ও কাজ করছে মেসির মস্তিষ্কে। ২০০৭, ২০১৫ ও ২০১৬ সালের কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেও শিরোপা অধরাই রয়ে গিয়েছিল আলবিসেলেস্তেদের।

২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে আর্জেন্টিনার হারে স্বপ্ন ভাঙে তার। সেই তিক্ত অভিজ্ঞার ঝুলি বৃদ্ধি পেলেও ইতিবাচক থাকার কথা জানান মেসি। বলেন, ‘আমরা হারি কিংবা জিতি,এটা মানতে হবে আমরা কোপা আমেরিকায় দারুণভাবে এগিয়েছি। শুধু তাই নয়, এবার যে দলটি রয়েছে, তারা শিরোপা জেতার দাবি রাখে।’

তথ্যসূত্র: গোল ডট কম

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on print
Print
ফেসবুক